মতলব উত্তরে ফের করোনা আক্রান্ত হলেন চিকিৎসক, নতুন আক্রান্ত ইউপি সচিব

কামরুজ্জামান হারুন :
মতলব উত্তর উপজেলায় আবারো ২ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এরা হচ্ছেন কলাকান্দা ইউপি সচিব (৪৫) ও বড় মরাদন গ্রামের এক যুবক (৩০)। শনিবার দুপুরে তাদের নমুনা টেস্টের রিপোর্ট করোনা পজেটিভ এসেছে।
এর মধ্যে ইউপি সচিব গত ৫ মে থেকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আইসোলেশনে রয়েছেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. নুশরাত জাহান মিথেন। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। এ নিয়ে উপজেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৫ জন। এর মধ্যে পূর্বে আক্রান্ত ৩ জন’ই সুস্থ হয়েছেন। তবে করোনা রোগীদের চিকিৎসা সেবা দিতে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত হওয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আসাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. মেহেদী হাসান সুস্থ হয়ে বাসায় ফেরার পর পুনরায় তার করোনা রিপোর্টে পজিটিভ এসেছে। তিনি এখন বাসায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তিনি সুস্থ রয়েছেন বলে জানা গেছে।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে আরও জানা যায়, বড় মরাদন গ্রামের এক যুবক করোনা উপসর্গ নিয়ে ৭ মে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসে। তার নমুনা সংগ্রহ করে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল টেকনোলজিষ্ট (এমটিইপিআই) ভাষান চন্দ্র কীর্তনীয়া।
জানা গেছে, ওই যুবক চাঁদপুরের বাবুরহাট থেকে করোনা উপসর্গ নিয়ে এলাকায় আসেন। অপরদিকে ৫ মে ইউপি সচিব করোনা উপসর্গ নিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসেন। কীট সংকটের কারনে ৭ মে তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরে তা ঢাকায় আইডিসিইআর-এ পাঠানো হয়। ৯ মে শনিবার সকাল ১১টায় তাদের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে।
সূত্র আরো জানায়, ইউপি সচিব নিজ ইউনিয়নে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। অপরদিকে বড় মরাদন এলাকার যুবক চাঁদপুরের বাবুরহাট এলাকায় টেলিটক কোম্পানীতে চাকুরি করতেন।
প্রসঙ্গত, গত ৮ এপ্রিল চাঁদপুরের প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় মতলব উত্তরে। এরপর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আরএমওসহ ৩ জন আক্রান্ত হন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.